বিজেপির বাইক মিছিল ঘিরে উত্তেজনা, তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ

SHARES
Share on FacebookShareTweet on TwitterTweet

অভিষেক মন্ডল: বিবেকানন্দের জন্মতিথিতে বাইক র‍্যালি ঘিরে তৃণমূল বিজেপি সংঘর্ষে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল জোড়াবাগান। সংঘর্ষের ফলে বিজেপির বেশ কিছু সমর্থক আহত হয়েছেন বলে দাবি বিজেপির। পরে এর বিরুদ্ধে পাল্টা অভিযোগ করেছে তৃণমূলও। স্বাভাবিক ভাবেই রণক্ষেত্রে পরিনত হয়েছিলো জোড়াবাগানের পাথুরিয়াঘাটা স্ট্রিট। 

বিজেপির যুব মোর্চার প্রতিরোধ সংকল্প অভিযানের জন্য প্রস্তুতি চলছিল শুক্রবার সকাল থেকেই। বিজেপির সদর দফতর থেকে মিছিল শুরু হওয়ার কথা ছিল এদিন সকালে। সেই জন্য পাথুরিয়াগাটার বিনানি ভবনে ছিলেন রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা থেকে আসা বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। বিজেপির তরফে অভিযোগ, “হাইকোর্টের নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও অভিযানে বাধা দিতে পথে নামে তৃণমূল। সারারাত বিনানি ভবন ঘিরে রাখা হয়। ঘিরে রেখেছিল ৩০ থেকে ৪০ জন মতো তৃণগুণ্ডারা” এমনটাই অভিযোগ করেছেন বিজেপি নেতা দেবজিৎ সরকার।

সকালে বিনানি ভবন থেকে বেরোতে গেলেই বিজেপি যুব মোর্চার কর্মীদের ব্যাপক মারধর করা হয়। বাড়ির সামনে থাকা চেয়ার ভেঙে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ বিজেপির। ইতিমধ্যেই তাদের চারকর্মীকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে দাবি বিজেপির।

স্থানীয় বিজেপি কাউন্সিলর মীনাদেবী পুরোহিতের অভিযোগ তাঁর ওপরেও হামলা হয়েছে। পুলিশের সামনে হামলা হলেও, কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ বিজেপির।
বেশ কিছু দোকান, বাড়ি, গাড়িতে হামলা চালানো হয়, চলে ব্যাপক ভাঙচুর।

পাল্টা অভিযোগ করেছে তৃণমূলও। মাতাল বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা স্থানীয় মহিলাদের কটুক্তি করে বলে অভিযোগ স্থানীয় তৃণমূল সদস্যদের, বিজেপিই প্রথম হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে তারা।

স্থানীয় তৃণমূল বিধায়ক স্মিতা বক্সি তৃণমূলের তরফে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। “তৃণমূল স্বামী বিবেকানন্দর জন্মদিনের দিন হামলা করতে পারে না” বলে দাবি করেছেন তিনি। বিজেপির সমর্থকরা নিজেই গণ্ডগোল পাকিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন স্মিতা বক্সি। “গণ্ডগোল পাকিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বদনাম করা হচ্ছে।” এমনটাই অভিযোগ তাঁর।

পরিস্থিতি রণক্ষেত্রের রূপ নিলে ঘটনাস্থলে জোড়াবাগান থানার পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়।

ADVERTISEMENT
ADVERTISEMENT

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *