আত্মঘাতী তৃণমূল সদস্যা, নেপথ্যে প্রোমোটারী দাপট

উদ্ধার যুবকের ঝুলন্ত দেহ, নেপথ্যে সোশ্যাল মিডিয়া
SHARES
Share on FacebookShareTweet on TwitterTweet

ওয়েব ডেস্ক: জোর করে জমিদখল থেকে বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ এই প্রথম নয়। প্রোমোটারদের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ বিভিন্ন সময় সামনে এসেছে। তবে দাপট কমেনি প্রোমাটারদের।

আবারো প্রোমাটারী দাপটের শিকার হয়ে আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা করলেন বেবি ধাড়া নামে তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্যের এক মহিলা। অভিযোগ, বহুবার থানায় জানিয়েও প্রতিকার মেলেনি। ফলত আত্মহত্যার পথই বেছে নিতে হচ্ছিল তাকে।

উদ্ধার যুবকের ঝুলন্ত দেহ, নেপথ্যে সোশ্যাল মিডিয়া
ছবি প্রতীকী

আশঙ্কাজনক অবস্থায় প্রথমে তাকে ধনেখালি গ্রামীণ হাসপাতাল ও পরে চুঁচুড়া ইমামবাড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অভিযুক্ত প্রোমোটার। তার দাবি, তার জমিই দখল করার চেষ্টা করছেন ওই মহিলা। এবিষয়ে এখন পর্যন্ত সঠিক কোনো প্রমাণ না মেলায় কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। তবে ঘটনার সত্যতা প্রমাণে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

এবিষয়ে বেবি দেবীর ছেলে শুভজিত অভিযোগ জানিয়ে বলেন, “স্বরাজবাবু জমির দখল করে আমাদের বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করার চেষ্টা করছে। বুধবার দলবল নিয়ে অস্ত্র দেখিয়ে বাড়ি ভাঙচুর করে যাওয়ায় মা থানায় গিয়েছিলেন। তবে পুলিশি তরফে কোনও সাহায্য মেলেনি। তাই, আতঙ্কিত হয়ে আজ সকালে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে।”

স্থানীয় সূত্রে খবর,জমি নিয়ে তাদের বিবাদ দীর্ঘদিনের। এমনকী বিষয়টি হাইকোর্ট পর্যন্ত গড়ায়। বুধবার হাইকোর্ট নির্দেশ দেয়, ১০ শতক জমি স্বরাজেরই। স্বরাজের দাবি, “আমি আমার জমির দখল নিতে গিয়েছিলাম। অযথা বিতর্ক হচ্ছে। আমার কোনও দোষ নেই।” প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান জমি নিয়ে দু’পক্ষের বচসা থেকে মারামারিও হয়। দুই তরফেই থানায় অভিযোগ দায়ের করে পরে পুলিশ প্রোমোটারের দুই সঙ্গীকে গ্রেপ্তার করে। 

ADVERTISEMENT
ADVERTISEMENT

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *