পদ্মাবতী বিতর্কে রাজনৈতিক মোড়

SHARES
Share on FacebookShareTweet on TwitterTweet

প্রেমাশ্রীতা দাস : পদ্মাবতী নিয়ে ইতিমধ্যেই তোলপার হয়েছে সারা দেশ। কর্নি সেনার নানা কুরুচিকর মন্তব্যকে ঘিরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিও সাবধান করেছিলেন তাঁদের। ছবির প্রধান চরিত্র দিপীকা পাডুকোনের পোশাক থেকে শুরু করে গানের দৃশ্য ছবির বেশ কিছু দৃশ্য নিয়েই ক্ষোভ জমছে পদ্মাবতী নিয়ে বিক্ষোভকারীদের মধ্যে। এবার সেই আগুনেই ঘি ঢালার কাজ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

প্রথম থেকেই বারবার ছবি মুক্তির দিন পেছানো হয়েছিল। ডিসেম্বরের ১লা তারিখে মুক্তি পাওয়ার দিন ঠিক হলেও সেটা আবারও পিছানো হল। আর এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর হাত আছে বলে মনে করছেন রাজপুত কার্ণি সেনা।

শুধু প্রধানমন্ত্রী নন চার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীও তাঁকে সমর্থন করেছেন। সেইসঙ্গে যেসব সামাজিক প্রতিষ্টান গুলি পদ্মাবতীর বিরোধীতা করে রাস্তায় নেমেছে তাদেরকেও কাঠগড়ায় তুলেছেন রাজপুত। আগামী দুই দিনের মধ্যে আরও তিনজন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করবেন তিনি। কালভি জানিয়েছেন, এই ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী কে আনুরোধ করবেন।

পদ্মাবতী বিতর্কে রাজনৈতিক মোড়
পদ্মাবতী বিতর্কে রাজনৈতিক মোড়

বাইরের রাজ্যে পদ্মাবতী নিয়ে যতই বিদ্রূপ করা হোক বাংলা যে পদ্মাবতীর পাশেই আছে তা স্পষ্ট হয়েছে। এসবের প্রতিবাদে ২২ শে নভেম্বর কলকাতার ধর্মতলায় প্রধানমন্ত্রীর কুশ পুতুল পুড়িয়ে বিক্ষোভ দেখান একদল মানুষ। তাছাড়া সেন্সার বোর্ড থেকেও এখনো ছাড়পত্র পায়নি পদ্মাবতী। বিতর্কের মধ্যেই আদৌ এবছর মুক্তি পাবে কিনা সেটাই এখন লাখ টাকার প্রশ্ন।

ADVERTISEMENT
ADVERTISEMENT

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *