নোকিয়া ৩৩১০-র প্রত্যাবর্তন

নোকিয়া ৩৩১০-র প্রত্যাবর্তন
SHARES
Share on FacebookShareTweet on TwitterTweet

নিজস্ব সংবাদদাতা: মুঠো ফোনের দুনিয়ায় প্রত্যাবর্তন হল নোকিয়া ৩৩১০-র। এক যুগ পর নস্টালজিয়া নিয়ে এবার আরও রঙিন হয়ে ফিরল বোতাম টেপা, শক্তপোক্ত জনপ্রিয় সেই সেটটি। ফেরার কথা ঘোষণা হয়েছিল আগেই। অবশেষে নতুন মোড়কে বহু প্রতিক্ষিত হ্যান্ডসেটটির উদ্বোধন হল। বার্সেলোনায় ওয়ার্ল্ড মোবাইল কংগ্রেসের (MWC) মঞ্চে সেটটির উদ্বোধন করলেন নোকিয়া-HMD গ্লোবালের CEO আর্তো নুমেলা।

নোকিয়া ৩৩১০-র প্রত্যাবর্তন
বাঁদিকে পুরানো নোকিয়া ৩৩১০ এবং ডানদিকে তারই নতুন সেট

বাজারে যতই থাকুক অ্যান্ড্রয়েড বা iOS ফোনের রঙিন হাতছানি। থাকুক ঝকঝকে টাচস্ক্রিন ও ইন্টারনেট ব্যবহারের আকর্ষণীয় অফার। সবকিছুকে পিছনে ফেলে আজও কদর রয়েছে নোকিয়া ৩৩১০-র। অনেকটা পুরনো চাল ভাতে বাড়ার মতো অবস্থা। যাঁদের ফোনে বেশি কথা বলার প্রয়োজন। তাঁরা এমনিতেই বোতাম টেপা ফোনই বেশি পছন্দ করেন। কারণ, স্মার্টফোনে একাধিক ফিচার থাকায় চার্জ শেষ হতে সময় লাগে না বেশি। কিন্তু সাধারণ হ্যান্ডসেটের ব্যাটারি যেন লম্বা রেসের ঘোড়া। একবার চার্জ দিলেই কথা বলা যায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা। নয়া মোড়কের নোকিয়া ৩৩১০-তেও থাকছে সেই সুযোগ। স্মার্টফোনের মতো সময়ে সময়ে করবে না হ্যাং।

নির্ঝঞ্ঝাট এই সেটটিতে পুরনো সুবিধার সাথে আরও নতুন সুবিধা যুক্ত করা হয়েছে। থাকছে ২ মেগাপিক্সেলের ফ্ল্যাশ ক্যামেরা। এমনকি সাদা কালো ছোটো ডিসপ্লেতে খেলা যাবে পুরনো সেই স্নেক গেমও। তবে এবার তা আপনি পাবেন নয়া ভার্সনে। আর্থাৎ আগের থেকে আরও উন্নতমানের। দামও আগের মতোই। প্রায় ৪০০০ টাকা। মে মাস নাগাদ ফোনটি ভারতীয় বাজারে মিলবে বলে জানানো হয়েছে সংস্থার তরফে।

নোকিয়ার এই ফোনটি বাজারে এসেছিল ১৭ বছর আগে। বাজারে আসার সঙ্গে সঙ্গে চাহিদা বাড়তে থাকে। কিন্তু, কয়েকবছর পর থেকে স্মার্টফোনের কাছে পিছিয়ে পড়ে। শেষমেশ ২০০৫ সালে বাজার থেকে ফোনটি তুলে নেয় সংস্থা। ততদিনে অবশ্য ১২ কোটি ৬০ লাখ ৩৩১০ বিক্রি হয়েছে। এক যুগ পর সকলকে অবাক করে, সমস্ত স্মার্টফোনকে পিছনে ফেলে ফের ৩৩১০ নিয়ে বাজারে এল আবার নতুন মোড়কে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *