বিশ্ববঙ্গ সম্মেলন বয়কট করলেন নীতিন গড়করি

বিশ্ববঙ্গ সম্মেলন বয়কট করলেন নীতিন গড়করি
SHARES
Share on FacebookShareTweet on TwitterTweet

ওয়েব ডেস্ক: দলীয় কর্মীদের উপর হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে বিশ্ববঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলন বয়কটের সিদ্ধান্ত নিলেন কেন্দ্রীয় সড়ক ও পরিবহন মন্ত্রী নীতিন গড়করি। দিল্লি থেকে নবান্নে এমনই বার্তা দিয়েছেন তিনি। বিজেপি রাজ্য নেতারা জানিয়েছেন, দলীয় কর্মীদের উপর হামলার প্রতিবাদেই সম্মেলন বয়কটের সিদ্ধান্ত গড়করির

বিশ্ববঙ্গ সম্মেলন বয়কট করলেন নীতিন গড়করি
বিশ্ববঙ্গ সম্মেলন বয়কট করলেন নীতিন গড়করি

রাজ্যের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে বারংবার বিজেপি যুব মোর্চার সংকল্প যাত্রায় হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। ঘটনায় আহত হন বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী। সংকল্প প্রতিরোধ অভিযানের কথায় রাজ্যের আপত্তি থাকলেও অবশেষে আদালতের অনুমতি মেলে। তা সত্ত্বেও শুক্রবার মোর্চার বাইক মিছিলকে ঘিরে ধুন্ধুমার বেঁধে যায় শহরে। বারংবার হামলার মুখে পড়ে বাইক মিছিল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয় বিজেপি। নিষ্পত্তি পেতে হামলার ঘটনায় হাইকোর্টে নালিশ জানায় বিজেপি।

রাজ্য সরকারের বিশ্ববঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলনের আমন্ত্রণে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি যে আসবেন না তা তিনি আগেই জানিয়েছিলেন, পরিবর্তে আসার কথা ছিল নীতিন গড়করির। কিন্তু দলীয় কর্মীদের ওপর বারংবার হামলার ঘটনায় প্রতিবাদ জানাতেই সম্মেলন বয়কটের সিদ্ধান্ত নিলেন গড়করি। এমনটাই জানিয়েছে বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব। পাশাপাশি এ ও জানানো হয়েছে, এমন ঘটনায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা করে ক্ষোভ প্রকাশও করেছেন নীতিন গড়কড়ি।

বিশ্ববঙ্গ সম্মেলন বয়কট করলেন নীতিন গড়করি
বিশ্ববঙ্গ সম্মেলন বয়কট করলেন নীতিন গড়করি

এবিষয়ে, বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, রাজ্যে বিজেপি কর্মীদের আক্রান্ত হওয়ার খবর কেন্দ্রীয় স্তরে জানানো হয়েছিল। রাজ্য সরকার তাদের সঙ্গে প্রতি মুহূর্তে অসহযোগিতা করে চলছে। এই পরিস্থিতিতে রাজ্য সরকারের সঙ্গে সৌজন্য বজায় রাখার মত ভদ্রতা করাও দুষ্কর হয়ে উঠেছে।

এদিন সম্মেলন বয়কট প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, “রাজ্যে গণতন্ত্র বলে কিছু নেই। সংবিধান বলে কিছু নেই। কোর্টের সম্মান পর্যন্ত নেই। যে সরকার কোর্ট, সংবিধান আর গণতন্ত্রকে সম্মান করে না। তার সঙ্গে কোনও সম্পর্ক, সহযোগিতা যেন না হয়। মনে হয় তার প্রেক্ষিতেই এবং সবকিছু চোখে দেখেই সম্ভবত একথা বলেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। সম্মেলন বয়কট করা হয়েছে।”

ADVERTISEMENT
ADVERTISEMENT

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *