নূপুরের নিক্কনে মুখর রবীন্দ্র সদন প্রাঙ্গন


Notice: Undefined offset: 0 in /home/khasskh/public_html/wp-content/plugins/techlineinfo-social-count/msssh.php on line 21

Notice: Undefined offset: 0 in /home/khasskh/public_html/wp-content/plugins/techlineinfo-social-count/msssh.php on line 21
SHARES
Share on FacebookShareTweet on TwitterTweet

নূপুরের নিক্কনে মুখর রবীন্দ্র সদন প্রাঙ্গন
পায়েল;শুভায়ন কলকাতা:
বাংলা নৃত্যমালায় অনেক নৃত্যই আছে তার মধ্যে অন্যতম ওড়িশি নৃত্যমালা।এই ওড়িশি নৃত্যমালা তরঙ্গিনী র উৎস থেকে আধুনিক সমাজে নানা যুগের সাক্ষ্য বহন করে অটুট মহিমায় নিরন্তর বয়ে চলেছে।4ই জুন রবীন্দ্র সদন প্রাঙ্গণে আলো ঝলমলে সন্ধ্যায় ভরে ওঠে বিপুল জনতার ভিড়।সকলের দৃষ্টি নূপুরের নিক্কনের দিকেই।শুরু হল ওড়িশি নৃত্যমালার তরঙ্গিনী র নৃত্যানুষ্ঠান।

উড়িষ্যা প্রদেশের শাস্ত্রীয় নৃত্য ওড়িশি র প্রথম আভাস মেলে ভুবনেশ্বর উদয়গিরি খন্ডগিরি ও শিলালিপি থেকে।খ্রীষ্টপূর্বের প্রথম শতক থেকে জৈন বৌদ্ধ শৈব তন্ত্রবাদ এই অতি প্রাচীন ওড়িশি নৃত্যমালাকে ছুঁয়ে যায়।এই নৃত্যধারা প্রথম শুরু হয় জৈন সম্রাট খারবেলার সময় থেকে।সামাজিক অর্থনৈতিক ধর্মের পরিবর্তনের সাথে সাথে পোশাক নৃত্যশৈলী যন্ত্রানুষঙ্গের পরিবর্তনের প্রতিফলন পাওয়া যায় এই নৃত্যমালায়।

এই নৃত্যনাট্য অনুষ্ঠানের প্রথমেই প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত টেকনো ইন্ডিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের এক বিশিষ্ট অধ্যাপিকা ডঃ শঙ্ঘমিত্রা মুখার্জী,পশ্চিমবঙ্গ এর বিশিষ্ট IPS মৃত্যুঞ্জয় কুমার সিং এবং বিশেষ চিকিৎসক ডঃ অভিজিৎ ব্যানার্জীকে বরণ করে নেওয়া হয়।এরপর গন্যমান্য ব্যক্তিদের বক্তব্য দিয়ে অনুষ্ঠান পর্ব শুরু হয়।তাদের কথায় শিক্ষা শুধু পুথিগত শিক্ষাই নয় শিক্ষা মানে কলা বিভাগ অর্থাৎ নৃত্যকলাও একটি শিক্ষা বিষয়ক।এই নৃত্যকে কেন্দ্র করেই এই অনুষ্ঠান।

কলকাতা ময়ূর ললিত ডান্স আকাডমির ওড়িশি নৃত্যমালা তরঙ্গিনীর মূল উদ্যোক্তা ও পরিচালিকা ছিলেন দেবমিত্রা সেনগুপ্ত;মূল ভাষ্য বিপ্লব গাঙ্গুলী;সঙ্গীত পরিবেশনায় পন্ডিত রঘুনাথ মিত্র পানিগ্রাহী;গুরু কেলুচরণ মহাপাত্র প্রমুখ ।

নৃত্যপরিবেশনায় উপস্থিত ছিলেন দেবমিত্রা সেনগুপ্ত নয়নীকা সেনগুপ্ত সহ কলকাতা ময়ূর ললিত ডান্স আকাডমির অন্যান্য নৃত্য শিল্পীরা।
ওড়িশার কেওনঝাড় জেলায় আবিষ্কৃত অষ্টহস্ত বিশিষ্ট শিবমূর্তির হস্তে বীণা ডমরু সর্প নিয়ে শিবের রূপের বর্ণনায় শিববন্দনার মাধ্যমে পর্যবেশিত হয় ওড়িশি নৃত্যানুষ্ঠান।

এখন কথ্থক ;ভারনাট্যম প্রভৃতি নাট্য গোষ্ঠীর মতো ওড়িশি ও অন্যতম হয়ে উঠেছে।সৃষ্টি সুখের উল্লাসী এই কথাটির একটি যেমন সারমর্ম আছে তেমনিই এই ওড়িশি গোষ্ঠী ও আরও উন্নত উজ্জ্বল বা পরিধি বিস্তার হয়ে উঠুক এই কামনা রইল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *