শাহরুখের জৌলুসের মাঝেই ব্রাত্য প্রয়াত কালিকা প্রসাদ

SHARES
Share on FacebookShareTweet on TwitterTweet

ওয়েব ডেস্ক : আলোর খেলা, তারকাদের মেলায় শুভ সূচনা হলো কলকাতা আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের।২৩ বছরে পা দিল ভারতের চলচ্চিত্র ইতিহাসে শ্রেষ্ঠ এই উৎসব। উৎসব ঘিরে যেমন সেজে উঠেছে স্টেডিয়াম, তেমনি তারকার উপস্থিতিতে জমজমাট তিলোত্তমা। আটোসাটো পুলিশি নিরাপত্তা। স্টেডিয়াম চত্ত্বরে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের জন্য নিয়ন্ত্রিত ছিল যানচলাচল।

বেশ কয়েক বছর ধরেই কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মূল আকর্ষণ হয়ে উঠেছে। এবছরেও অনুষ্ঠান মাতিয়ে দেন অমিতাভ বচ্চন, শাহরুখ খান, কাজলের মতো তারকারা। তবে আজকের সবচেয়ে বড়ো আকর্ষণ কমল হাসান। যদিও অনুষ্ঠান জুড়ে শুধুই শাহরুখ। তার নামে উত্তাল মঞ্চ থেকে গ্যালারি। ভাঙা বাংলায় দর্শকদের মুগ্ধ করলেন শাহরুখ, কাজল অমিতাভ সকলেই। সামনের বছর ধুতি পাঞ্জাবী পড়ে আসবেন বললেন কিং খান, দিদিও তা উপহার দেবার কথা বললেন। বক্তৃতা রাখেন কমল হাসান থেকে মহেশ ভট্ট। ছিলেন টলি তারকারাও। অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়।

-- টুঁইটার
— টুঁইটার

তারকার পাশাপাশি বিভিন্ন পুরষ্কার নিয়েও থাকছে সিনে প্রেমিদের কৌতুহল। বিগত কয়েক বছর ধরেই দেওয়া হচ্ছে গোল্ডেন টাইগার অ্যাওয়ার্ড। এই বছর থেকে দেওয়া হচ্ছে ‘হিরালাল সেন অ্যাওয়ার্ড’। আগের বছর অমিতাভ বচ্চন তার বক্তৃতায় হিরালাল সেনের নাম করেছিলেন। তার পরেই এই বছর এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বাংলায় হিরালাল সেনের হাত ধরেই চলচ্চিত্রের পথচলা তা স্মরণে রাখতেই এই অ্যাওয়ার্ড চালু করা হল বলেই মনে করা হচ্ছে।

উৎসবে দেখানো হবে ৫৬ টি দেশের ১৪৩ টি ছবি। এই বছর থিম হিসাবে বেছে নেওয়া হয়েছে ব্রিটেনকে। শহরের একাধিক প্রেক্ষাগৃহে চলবে সিনেমাগুলি। উৎসব চলবে ১৭ই নভেম্বর পর্যন্ত।

-- টুঁইটার
— টুঁইটার

উদ্বোধনে প্রদীপ জ্বললো, জ্বললো হাজার আলো। কাজল বললেন, বাংলা সংস্কৃতি পূর্ণ। মুখ্যমন্ত্রীও সংস্কৃতির পৃষ্ঠপোষক। সেই বাংলাতেই উপেক্ষিত বাংলা সংস্কৃতির প্রাণপুরুষ। বলা হয় বাংলা সঙ্গীত আসে ফকিরদের থেকে। বাউলদের জন্য মুখ্যমন্ত্রী একাধিক ভাতার ব্যবস্থা করেছেন, ঘটা করে করেন বাউল উৎসব। তার মাঝেই ২৩ তম ফিল্ম ফেস্টিভাল থেকে বাদ পড়লেন মার্চ মাসে প্রয়াত হওয়া বাউল শিল্পী কালিকা প্রসাদ ভট্টাচার্য। ঝলমলে আলোর মাঝে অন্ধকারে থেকে গেলেন বাংলা সংস্কৃতি নিয়ে গবেষণা করা এই শিল্পী। প্রশ্ন উঠছে, লাইমলাইটের আলোয় জনপ্রিয়তার সস্তা রাজনীতি করছেন মুখ্যমন্ত্রী? বছরভর ভাতা, উৎসব তারই উদাহরণ? জৌলুসের মাঝেও ফিকে হয়ে থাকলো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *