সুমনের হাত ধরে তিরিশ বছরের সন্ধান

SHARES
Share on FacebookShareTweet on TwitterTweet

তরুনা মণ্ডল

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের চিঠি পড়েছেন? আরে তার লেখা কোন পত্রের কথা বলিনি। আজ্ঞে হ্যাঁ, তাঁর লেখা গল্প ‘চিঠি’, সেটা পড়েছেন কি? যদি না পড়ে থাকেন তাহলেও চিন্তা নেই। এবার ‘চিঠি’ নিজেই ভেসে উঠতে চলেছে আমার আপনার চোখের সামনে। সুমন অধিকারীর হাত ধরে ‘চিঠি’ এবার পর্দায় নামান্তরে আসছে ‘বছর তিরিশ পর’।

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের গল্প অবলম্বনে এই ছোট ছবিতে তুলে ধরা হয়েছে এক লেখকের হঠাৎই এক চিঠি পাওয়ার মুহুর্ত। যেই মুহূর্ত দর্শককে নিয়ে যাবে ছবির ‘ক্লাইম্যাক্সে’। হঠাৎই খুঁজে পাওয়া এই চিঠি লেখককে ভাবাবে তাঁর ভক্তদের কথা। কিন্তু মোড় ঘুরবে তখনই যখন তাঁর চোখে পড়বে চিঠিতে উল্লেখ্য বাংলার সাল ১৩২৪, যা তিনি পড়ছেন ১৩৫৪ তে দাঁড়িয়ে, ঘটনা তো আরো জমবে যখন চোখে পড়বে, চিঠির ডান দিকের কোনাটা, যেখানে লেখা ইতি- নিরূপমন! নিরূ, তাঁর প্রথম স্ত্রী। যে চিঠিটা তিনি লিখে গিয়েছিলেন তাঁর মৃত্যুর ঠিক আগে। সেই থেকে ৩০ বছর পর এই চিঠিই তখন তাঁকে নিয়ে যাবে তাঁর সেই স্ত্রীর সাথে কাটানো সেই সকল সময়ে। স্মৃতির এই পাতা উল্টে দেখতে দেখতেই শুরু হবে গল্পের চরম মুহূর্ত।

উত্তেজনাপূর্বক এই গল্পের নেপথ্যে রয়েছেন এমন বিভিন্ন মানুষ যারা প্রত্যেকে সুমনের সাথে হাতে হাত মিলিয়ে পরিশ্রম করেছেন ছবিটি তৈরিতে। শুভায়ূ চক্রবর্তী’র সিনামাটোগ্রাফি’তে তৈরি এই ছবিতে যারা অভিনয় করেছেন তাঁরা হলেন, আর.জে রয়, সঙ্কলিতা রায়, স্যান্ডি এস.কে, তনুশ্রী বিশ্বাস, সুব্রত বর্মন এবং আরো অনেকে। বিখ্যাত লেখকের লিখিত গল্পকে অবলম্বন করে, তাতে উপযুক্ত অভিনয়, কৌতূহল, নাটক, উত্তেজনা, ডায়লগ ও শিহরণ মেশানো এই ছোট ছবি দর্শকদের ভালো লাগবে বলেই আশা করা যাচ্ছে।

ADVERTISEMENT
ADVERTISEMENT
ADVERTISEMENT
ADVERTISEMENT

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *