৮৫ হাজার বছর আগে আধুনিক মানুষের বসবাস সৌদি আরবে

SHARES
Share on FacebookShareTweet on TwitterTweet

সুরজিৎ খাঁ : আজ থেকে ৮৫ হাজার বছর আগের সৌদি আরব নিয়ে গবেষণায় বিজ্ঞানীদের হাতে উঠে এল এক সম্ভাবনাময় তথ্য। সম্প্রতি পাওয়া হোমো স্যাপিয়েন্স বা মানব হাড়ের রেডিও আইসোটোপ পরীক্ষা করে বিজ্ঞানীরা ধারণা করছেন ৮৫ হাজার বছর আগে ছিল আধুমিক মানুষের বসবাস।

বিজ্ঞানীরা খোঁজে সৌদি আরবের আল ওয়াস্তা এলাকায় সংরক্ষিত একটি হ্রদের নীচে কয়েকটি আঙ্গুলের হাড় পান তারা। এর মালিকের অন্য কোন অঙ্গ পাওয়া যায়নি। এটি নিয়েই গবেষনা করেন বিজ্ঞানীরা। এবিষয়ে বিজ্ঞানী ড. হাও গ্রোকাট বলছেন, ”সে সময়ে বসবাসকারী মানব বা অন্য প্রাণীগুলো বেশিরভাগই কোন চিহ্ন না রেখে বিদায় হয়ে গেছে। আমরা ভাগ্যবান যে, আমরা এরকম একটি টুকরা পেয়েছি। হয়তো একজনের এরকম একটি টুকরা থেকে এখনি কিছু বলা যাবে না, তবে এ থেকে অনেক তথ্য পাওয়া যাবে।”

বিজ্ঞানীরা আগে ইসরায়েল, চীন আর অস্ট্রেলিয়া থেকে পাওয়া নানা নমুনা দেখে ধারণা করতো যে, অন্তত এক লাখ ৮০ হাজার বছর আগেই মানুষজন আফ্রিকা মহাদেশ থেকে বেরিয়ে বিভিন্ন এলাকায় ছড়িয়ে যায়। বিজ্ঞানীদের মতানুসারে, ৮৫ হাজার বছর আগে আজকের তুলনায় সৌদি আরবের পরিবেশ ছিল বেশ ভিন্ন। মৌসুমি বৃষ্টিপাতের কারণে তখন অনেক বড় বড় হৃদ তৈরি হয়েছিল, আর সেসব হৃদে জলহস্তীর মতো প্রাণী থাকতো। অ্যান্টি লোপ ও বুনো গরুর মতোও অনেক প্রাণী বাস করতো এখানে।

ADVERTISEMENT
ADVERTISEMENT

এছাড়াও দক্ষিণ আফ্রিকায় সাম্প্রতিক গবেষণাতেও বেরিয়ে এসেছে একই তথ্য। ড. গ্রোকাটের মতে উঠে এসেছে, এসব কারণবশত আফ্রিকা থেকে তখনকার মানুষরা সৌদি আরবে এসে শুরু করে বসবাস । এটি হতে পারে কয়েক হাজার বছর বা কয়েকশো হাজার বছর।

তবে বলা বাহুল্য, এসব নমুনা থেকে সম্পূর্ণ ভাবে বোঝা যাচ্ছে না যে মানুষজন সেখানে কতদিন বাস করেছে। এবং বসবাস করলেও সেই মানুষরা কি সবাই মারা গেছে নাকি অন্য কোথাও চলে গেছে, সেটাও এখনো পরিষ্কার নয়। তবে সম্ভাবনাময় বক্তব্য হল যে, তারা সবাই বিলুপ্ত হয়ে গেছে, আর তাদের স্থানেই বিরাজমান মানুষের বর্তমান প্রজাতি।

ADVERTISEMENT
ADVERTISEMENT

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *