শারীরিক সুখ মেটাতে শিশু পুত্রের সাথে যৌনাচার আয়ার।

শারীরিক সুখ মেটাতে শিশু পুত্রের সাথে যৌনাচার আয়ার।
SHARES
Share on FacebookShareTweet on TwitterTweet

ওয়েব ডেস্ক: ব্যস্ততাময় জীবনে যেখানে নিজের জন্যই সময় থাকে না সেখানে পরিবারকে সময় দেওয়ার কথাটা তো একপ্রকার ভাবনাতীত। এমনকি নিজের সন্তানদেরও সময় দেওয়াটাও কষ্টসাধ্য হয়ে উঠেছে। আর দিনে দিনে দিনে অতিরিক্ত ব্যস্ততাই বাবা-মায়ের সঙ্গে সন্তানের যোগাযোগের অবকাশটুকুও কেড়ে নিচ্ছে। ফলত সন্তানের সঙ্গে হওয়া অন্যায় বা অসুবিধাগুলি অজানাই থেকে যাচ্ছে ।

শারীরিক সুখ মেটাতে শিশু পুত্রের সাথে যৌনাচার আয়ার।
ছবি প্রতীকী

দিকে দিকে যখন শিশু নিগ্রহের ঘটনায় তোলপাড় গোটা রাজ্য তারই মধ্যে সামনে এল আরো একটি ঘটনা। কাজের চাপে পরিবারের কারোরই সময় হচ্ছিল না বাচ্ছার খেয়াল রাখার।তাই বাচ্ছার খেয়াল রাখার জন্য রাখা হয়েছিল একজন বেবি সিটার।কিন্তু তাতেই যে ঘনিয়ে আসতে চলেছে বিপদ তা বুঝতেও পারেনি কেউ। যৌন নিগ্রহের শিকার হতে হবে তাকেও,মেটাতে হবে সেই বেবি সিটারের শরীরসুখ।

এক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী জানা যাচ্ছে এই অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বেবি সিটার মেরি মেডেলিন নামের ওই ১৮ বছরের তরুণীকে।

তবে বাবা মা নন বেবি সিটারের এমন অপকর্মের খবর নিজেই জানালো ঐ শিশু। নিজের সাথে হওয়া অন্যায়ের পরেই তার মা কে সব জানায়। তার মা তখন আইনের দ্বারস্থ হন। অভিযোগ, ওই বেবি সিটার যৌনক্রিয়া করতে জোর করে শিশুটিকে।অভিযোগ পেয়েই পুলিশি তরফে জেরা করা হয় ঐ তরুণীকে। তবে সেই সময় পুলিশের কাছে অভিযোগ অস্বীকার করে ঐ তরুণী।

এরপরই অভিযোগের সত্যতা প্রমাণ করতে ওই শিশু এবং তরুণী দুজনের উপরই পরীক্ষা চালানো হয়। পরীক্ষায় তরুণীর স্তনে শিশুটির ডিএনএ পাওয়া গিয়েছে। ওই তরণীর যৌনাঙ্গ থেকেও ডিএনএ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে সেটি ওই শিশুরই কি না, তা এখনও স্পষ্ট করে জানা যায়নি।

তবে পরীক্ষার ফল প্রকাশের পরে এবং পুলিশের চাপে সবটাই স্পষ্ট হয়ে যায় সবার কাছে। এরপরেই তাকে গ্রেফতার করা হয়। আপাতত ৭৫০০০ ডলারের বিনিময়ে তাকে জামিন দেওয়া হয়েছে বলেই জানা গিয়েছে।

ADVERTISEMENT
ADVERTISEMENT

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *