বাংলার ‘রূপোলী মেয়ে’ কে সংবর্ধনা আদিত্য স্পোর্টিং স্কুলের

বাংলার 'রূপোলী মেয়ে' কে সংবর্ধনা আদিত্য স্পোর্টিং স্কুলের
SHARES
Share on FacebookShareTweet on TwitterTweet

শ্রেয়সী মিস্ত্রী : ২০১৮ কমনওয়েলথ গেমস-এ মেহুলি ঘোষের নাম কারোর অজানা নয়,শ্যুটিং এ একটুর জন্য সোনা হাতছাড়া হয় মেহুলির। দেশে ফিরেই বিভিন্ন সংবর্ধনা, পুরষ্কারে পুরষ্কৃত হয়েছে এই বঙ্গ তনয়া। ২৮ শে এপ্রিল শনিবার আদিত্য স্কুল অব স্পোর্টস এর তরফে মেহুলি ও তার কোচ জয়দ্বীপ কর্মকারকে সংবর্ধনা জানানোর জন্য একটি অনুষ্টানের আয়োজন করা হয়।

বাংলার 'রূপোলী মেয়ে' কে সংবর্ধনা আদিত্য স্পোর্টিং স্কুলের
মেহুলির হাতে জার্সি লঞ্চ

এদিনের অনুষ্ঠানে পরবর্তী পরিকল্পনা সম্পর্কে মেহুলির কোচ বলেন, এখানে দুই সপ্তাহ প্র‍্যাক্টিসের পরই তারা চলে যাবে জার্মান, এবং সেখানে কিছুদিন প্র‍্যাক্টিসের পর আপাতত তাঁদের লক্ষ্য ২২ শে মে এর ফাইনাল।

“আমি কখনও নিজের উপর এক্সপেকটেশন রাখিনা, আমি সবসময় চেষ্টা করি আমার বেস্ট টেকনিক ব্যাবহার করার” বলল বছর সতেরোর মেহুলি। আদিত্য গ্রুপ এই অনুষ্ঠানে বারাসাতে জয়দ্বীপ কর্মকারের হাতে শ্যুটিং আকাদেমি লঞ্চ করার পরিকল্পনার কথা উল্লেখ করে, যা খুব শীঘ্রই চালু হতে চলেছে।

মেহুলির কোচ জয়দ্বীপ কর্মকার বলে শ্যুটিং খেলাটির সম্পর্কে ভারতের অনেকেরই স্পষ্ট ধারনা নেই, অথচ শুটিং “ইন্ডিয়ার প্রায়োরিটি স্পোর্টসের” মধ্যে এক নাম্বারে রয়েছে। তিনি এও উল্লেখ করেন কলকাতার অনেক বড় বড় ক্লাব মেহুলিকে প্র‍্যাক্টিস করতে দেয়নি। তার মতে ক্রিকেট, ফুটবল থেকে চোখ সরিয়ে যতদিন না মানুষ এই ধরনের স্পোর্টস-কে গুরুত্ব দেবে ততদিন দেশের অনেক মেহুলির মতো বহু প্রতিভাই পিছিয়ে থাকবে।

ADVERTISEMENT
ADVERTISEMENT
ADVERTISEMENT
ADVERTISEMENT

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *